হেডলাইনঃ
হেডলাইনঃ
জগন্নাথপুর-শিবগঞ্জ- বেগমপুর সড়কে কালভার্টের এ্যাপ্রোচে ধ্বস, সরাসরি যানবাহন চলাচল বন্ধ জগন্নাথপুরে রাস্তার ঢালাই কাজ পরিদর্শন করেছেন মেয়র আক্তারুজ্জামান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতি সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলা শাখার ১৪১ সদস্য কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে এক শিক্ষক এর ঘুষিতে অপর শিক্ষক আহত, একজন জেল হাজতে দোয়ারাবাজারে শহীদ মিনারে জুতা পায়ে শিক্ষকদের ফটোসেশান : ফেসবুকে তোলপাড় হত্যা মামলার আসামি সহ কানাইঘাটে গ্রেফতার-২ মধ্যনগরে মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধা নিবেদন সুনামগঞ্জে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহীদ স্মরণে বিভিন্ন দলের পুষ্পস্তবক অর্পণ নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে জগন্নাথপুরে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন দোয়ারাবাজারে মদের চালানসহ কারবারি আটক

মধ্যনগরে অভাবে মায়ের চিকিৎসা করাতে পরছেন না ছেলে

অমৃত জ্যোতি (মধ্যনগর) সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ / ২৮৯ Time View
Update : রবিবার, ৬ আগস্ট, ২০২৩, ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলার এক ব্যাক্তি অর্থের অভাবে মায়ের চক্ষু চিকিৎসা করাতে পারছেন না।অসহায় হয়ে সহায়তা চেয়েছেন একমাত্র পুত্রসন্তান লিটন।একদিকে পাওনাদারদের ঋণের টাকা পরিশোধের চাপ।অন্য দিকে বাপ ছেলে দুজনেই দিনরাত্র পরিশ্রম করছেন রেস্টুরেন্টে।ঋণগ্রস্থ পরিবার প্রধান উপজেলার মধ্যনগর ইউনিয়নে সদর ওয়ার্ডের জমশেরপুর গ্রামের মৃত নবীন সরকারের একমাত্র পুত্র লিটন সরকার(৪১)।তিনি একপুত্র সন্তানের জনক। পরিবারে স্ত্রী,ছেলে,মা ও তিনি ৪সদস্যের পরিবার তাঁর। পরিবার পরিচালনা করতে নিজে এবং কিশোর বয়সী একমাত্র ছেলেও মিষ্টির দোকানে শ্রমিকের কাজ করছেন।

পরিবারের ঘানী টানতে গিয়ে অবশেষে নিজের স্বর্বস্ব বিলিয়ে এসকল সমস্যার সমাধান করতে পারছেন না।ঘরে সত্তর বছর বয়সী বৃদ্ধা মায়ের চক্ষু চিকিৎসাও করাতে পারছেন না, শুধুমাত্র অর্থের অভাবে।মায়ের চক্ষুর চিকিৎসা করাতে আর্থিক সাহায্য চান দেশ বিদেশ সহ সকল বৃত্তবানদের। তিনি বলেন পরিবার চালাতে গিয়ে প্রতি সপ্তাহে কিস্তি মিলাতে হয় চার হাজার টাকা।এরি মধ্যে বৃদ্ধা মায়ের চিকিৎসা,পাবলিক ঋণ,ব্যাংক ঋণ ও কয়েকটি এনজিও ঋণ মিলে অনেক টাকার প্রয়োজন।

তাই তিনি সকলের কাছে বিনীত কন্ঠে সহায়তা চেয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।আরো বলেন নিজের সবকিছু দিয়ে সন্তানকে মানুষ করে মা।সেই মায়ের চক্ষুর চিকিৎসা করতে পারছি না,আমি নিরুপায় ও অসহায়।তাই নির্লজ্জ্ব হয়ে সমাজের ধনী ব্যাক্তিদের কাছে দুহাত পেতেছি। এবং আমার করজোড়ে মিনতী আমাকে একটু সহায়তা করুন।যাহাতে বৃদ্ধা মায়ের চিকিৎসা করাতে পারি,আপনাদের মাধ্যমে।মাতা প্রণতী সরকার(৭০)তার একমাত্র ছেলে লিটন সরকার।সহায়তা করতে নিচের নাম্বারে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানিয়েছেন অসহায় পুত্র লিটন।০১৭৯৯৩২৪৪০৭(নিজ)০১৩২৩৫৩৯১৩০(ছেলে)।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com