হেডলাইনঃ
হেডলাইনঃ
জগন্নাথপুর-শিবগঞ্জ- বেগমপুর সড়কে কালভার্টের এ্যাপ্রোচে ধ্বস, সরাসরি যানবাহন চলাচল বন্ধ জগন্নাথপুরে রাস্তার ঢালাই কাজ পরিদর্শন করেছেন মেয়র আক্তারুজ্জামান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতি সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলা শাখার ১৪১ সদস্য কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে এক শিক্ষক এর ঘুষিতে অপর শিক্ষক আহত, একজন জেল হাজতে দোয়ারাবাজারে শহীদ মিনারে জুতা পায়ে শিক্ষকদের ফটোসেশান : ফেসবুকে তোলপাড় হত্যা মামলার আসামি সহ কানাইঘাটে গ্রেফতার-২ মধ্যনগরে মাতৃভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে শ্রদ্ধা নিবেদন সুনামগঞ্জে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহীদ স্মরণে বিভিন্ন দলের পুষ্পস্তবক অর্পণ নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে জগন্নাথপুরে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন দোয়ারাবাজারে মদের চালানসহ কারবারি আটক

শান্তিগঞ্জে স্কুল ছাত্রী রাজনা হত্যকান্ডের ঘটনায় ২জন গ্রেপ্তার, জেলহাজতে প্রেরণ

কুলেন্দু শেখর দাস, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ / ১০০ Time View
Update : শুক্রবার, ২৮ জুলাই, ২০২৩, ৬:৪২ পূর্বাহ্ণ

সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার পাথারিয়া ইউনিয়নের পাথারিয়া স্কুল এন্ড কলেজের সপ্তম শ্রেণীর শিক্ষার্থী রাজনা বেগম হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে তার চাচাতো ভাই ও চাচীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

স্কুল ছাত্রীর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধারের ঘটনায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, মো. সালমান মিয়া (২৪),তিনি পাথারিয়া গ্রামের সিজিল মিয়ার ছেলে ও আইরুন নেছা (৫২),তিনি সিজিল মিয়ার সহধর্মিনী। গ্রেপ্তারকৃতরা সম্পর্কে নিহত রাজনা বেগমের চাচাতো ভাই ও চাচী।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত(২৬ জুলাই বুধবার রাত ৯টায় শান্তিগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল আলোচিত স্কুলছাত্রী হত্যার রহস্য উদঘাটনে প্রাথমিক ভাবে হত্যার সাথে কারা জড়িত অনেকের সংশ্লিষ্টতার আলামত পাওয়া যায়।

তারই প্রেক্ষিতে বুধবার রাতে পুলিশ নিহতের চাচাতো ভাই সালমান ও তার মা আইরুন নেছাকে সন্দেহ হলে তাদের দুজনকে গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশ। বিভিন্ন আলামত পর্যালোচনা করে গ্রেপ্তারকৃত মা ও ছেলেকে বস্তাবন্দি স্কুল ছাত্রী রাজনা হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

এর আগে স্থানীয় ইউপি সদস্য নিহত রাজনার চাচাত ভাই আব্দুর রাজ্জাককে জড়িত সন্দেহে থানা পুলিশ আটক করে। পরে থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাককে পাথারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলামের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে শান্তিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. খালেদ চৌধুরী জানান, চাঞ্চল্যকর স্কুল ছাত্রী হত্যার ঘটনায় শান্তিগঞ্জ থানা পুলিশ রহস্য উদঘাটনে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে আসছিল। গত ২৬ জুলাই রাতে এই আলোচিত হত্যাকান্ডের সাথে বিভিন্ন আলামতের মিল থাকায় নিহত রাজনা বেগমের চাচাতো ভাই ও চাচীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদেরকে ঐ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মামলার আরো রহস্য উদঘাটনে গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের রিমান্ডের আবেদন করা হবে। আশা করি দ্রুত এই হত্যাকান্ডের সাথে কে বা কারা জড়িত ও হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন করতে সক্ষম হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, গত শনিবার ২২ জুলাই সন্ধ্যায় নিহত শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দি লাশ তাদের পাশের গ্রাম শরীফপুর তালুকদার বাড়ী সংলগ্ন সড়কের পাশে থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। রাজনা বেগম পাথারিয়া গ্রামের ইসরাইল মিয়ার মেয়ে এবং স্থানীয় সুরমা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের সপ্তমশ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিলেন। এ ঘটনায় গত ২৩ জুলাই নিহত রাজনা বেগমের পিতা ইসরাইল মিয়া নিজে বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামী করে শান্তিগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com